সেনবাগে চাঁদা না দেওয়ায় সংখ্যালঘু পরিবারের বসত বাড়ীতে হামলা,ভাংচুর,ককটেল বিস্ফারণ

 Posted on

রিপন মজুমদার, নোয়াখালী

সেনবাগের মোহাম্মদপুর ইউপির দক্ষিণ মোহাম্মদপুরে সন্ত্রাসীদের দাবীকৃত চাঁদার ৫০ হাজার টাকা না দেয়ায় মন্টু চন্দ্র দাসের বাড়ীতে হামলা ভাংচুর ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।স্হানীয় ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসী রয়েল ও বাহাদুরের নেতৃত্বে হামলায় পান ব্যাপারী মন্টু চন্দ্র দাস (৮০) উষা রানী দাস (৫০) মিঠুন চন্দ্র দাস (২১) ও মায়া রানী দাস (৪৭) গুরুত্বর আহত হয়েছে।খবর পেয়ে সেনবাগ থানার এএসআই অরুপ রায় সহ পুলিশ ঘটনাস্হল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় কেশব চন্দ্র দাস বাদী হয়ে সোমবার রাতে সেনবাগ থানায় মামলা( নং ১৪) রুজু হয়েছে।মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়,রোববার দুপুর ১টায় সন্ত্রাসী রয়েল মন্টু দাসের বাড়ীতে এসে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে।দাবীকৃত টাকা না দিলে নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ের সম্প্রসারণ কাজ বন্ধ করে দেবেন বলে হুমকি সহ ভয়ভীতি প্রদর্শন করে সে স্হান ত্যাগ করে।বাড়ীর কর্তা পান ব্যাপারী মন্টু চন্দ্র দাস জানান,ওইদিন সন্ধ্যা ৭ টায় রয়েল ও বাহাদুরের নেতৃত্বে বাড়ীর অভ্যন্তরে প্রবেশ করে পুনরায় চাঁদা দাবী করে।টাকা না পেয়ে ৭/৮ জন সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ৮/১০ টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করে নারী পুরুষদের ওপর হামলা চালায়।এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা বিল্ডিংয়ের দরজা জানালা কুপিয়ে তান্ডব চালায়।মামলার বাদী কেশবের স্ত্রী সীমারানী দাস জানান,তারা চরম নিরাপত্তাহীনতা দিনাতিপাত করছেন। মামলা তুলে না নিলে ধর্ষণ সহ বাড়ী ছাড়া করার হুমকি দিচ্ছে সন্ত্রাসীরা। সেনবাগ থানার ওসি মো: মিজানুর রহমান মামলা গ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন অভিযান অব্যাহত আছে জড়িতদের গ্রেফতার করা হবে

 

Facebook Comments