শ্যামনগরের গাবুরায় জালিয়াতির মাধ্যমে সংখ্যালঘুর জমি দখলের চেষ্টা

 Posted on


রঘুনাথ খাঁ, সাতক্ষীরা ঃ সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার গাবুরা ইউনিয়নের জেলিয়াখালি গ্রামে জাল জালিয়াতির মাধ্যমে সংখ্যালঘুর ১০ বিঘা জমি দখলের চেষ্টা করা হচ্ছে। এ নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে ওই পরিবারের সদস্যরা।
জেলিয়াখালি গ্রামের দেবেন্দনাথ মণ্ডলের ছেলে শেখর চন্দ্র মণ্ডল জানান, গাবুরা মৌজায় তিন একর ২৯ শতক জমির মধ্যে ওয়ারেশ সূত্রে তিনি ও তার শরীকগণ মালিকানা পেয়ে ভোগদখলীকার আছেন। স¤প্রতি ওই জমি একই গ্রামের ক্ষিতিশ চন্দ্র মণ্ডলের (বর্তমানে ভারতীয় নাগরিক) কাছ থেকে মৌখিকভাবে কিনেছেন দাবি করে আসছিলেন গাবুরা গ্রামের মতিয়ার রহমান গাজীর ছেলে একসময়কার জামায়াত নেতা গাজী নজরুলের কাছের লোক বলে পরিচিত নব্য আওয়ামী লীগার নজরুল ইসলাম ও শফিকুল ইসলাম। বর্তমানে আওয়ামী লীগ নেতা শফিউল আযম লেনিনের ছোট ভাই গরীব নেওয়াজ প্রিন্সের সঙ্গে সখ্যতা রেখে আদালতে মামলা থাকার পরও ওই জমি জবরদখলের চেষ্টা করে আসছেন নজরুল ও শফিকুল। শনিবার দুপুরে নজরুল হুমকি দিয়ে বলে যে জমি ছেড়ে না দিলে ভারতে চলে যাওয়ার সময় দেওয়া হবে না। এমতাবস্থায় তিনি ও তার পরিবারের সদস্যরা রয়েছেন চরম নিরাপত্তাহীনতায়।

স্থানীয়দের অভিযোগ, গাজী নজরুল এমপি থাকাকালিন ২০০২ সালে সাবেক স্বাস্থ্য কর্মী নজরুল ইসলাম হুমকি ধামকি দিয়ে জেলেখালি এলাকার রবীন্দ্রনাথ মণ্ডলের ও ক্ষিতিশ মণ্ডলের ৫০ বিঘারও বেশি জমি টাকা ছাড়াই লিখে নিয়ে দেশ ছাড়তে বাধ্য করেছে। একই ভাবে জাল জালিয়াতির মাধ্যমে কাগজপত্র তৈরি করে শেখর মণ্ডলকেও দেশ ত্যাগে বাধ্য করার চেষ্টা চালাচ্ছে নজরুল ও তার সহযোগীরা।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রোববার সন্ধ্যা ৬টা ১০ মিনিটে নজরুল ইসলামের ০১৭১৫-২৩২৪০০ নং মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

Facebook Comments