বোরো ধানের জমিতে দুলছে কৃষকের স্বপ্ন, লক্ষ্যমাত্রা অতিক্রম তালায়

 Posted on

এস এম বাচ্চু, তালা::
আর মাত্র ক’দিন। ধূম পড়বে তালা উপজেলায় বোরো ধান কাটার। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখছেন এই উপজেলার কৃষকরা। সম্প্রতি কৃষক ও কৃষি কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে এমন তথ্য উঠে আসে।

মাঠে মাঠে সবুজের সমাহার, সাতক্ষীরার তালায় এবার বেশিরভাগ জায়গায় বোরো ধানের চাষাবাদ হয়েছে। বৈরী আবহাওয়ায় জমির ফসল নষ্ট না হলে ভালো ফলনের আশা করছেন কৃষকরা। প্রতিটি ধান গাছে ধানের শীষ বেড়িয়েছে। গামুর হয়েছে গাছগুলো,ধান এসেছে মুখে মুখে। পূবালী বাতাসে গাছগুলো দোল খাচ্ছে, আর মিতালী করছে।কৃষকরা ধানের জমিতে ঘুরছে আর স্বপ্ন দেখছেন। পোকামাকড় দূরীকরণে কীটনাশক ক্ষতে স্প্রে করছেন তারা। ধানের ক্ষেতে যেন দুলছে কৃষকের স্বপ্ন।আগামী জুন মাসের মধ্যে শুরু হবে ধান কাটা ও মাড়াই।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে প্রায় ৫০০ হেক্টরের বেশি জমিতে ইরি-বোরো চাষাবাদ হয়েছে।চলতি মৌসুমে তালা উপজেলায় বোরো আবাদ হয়েছে প্রায় ১৯৫৪০ হেক্টর জমিতে। এতে বিআর-২৮, বিআর-৫০, বিআর-৫৫ বিআর-৬০, বিআর-৬৭, বিআর-৮১সহ বিভিন্ন হাইব্রিড জাতের ধান চাষ করা হয়েছে।

কৃষকরা জানান, আর কয়েকদিন আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে বোরোর বাম্পার ফলন ঘরে তুলবেন তারা। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাও এমনটাই প্রত্যাশা করছেন।

গোপালপুর গ্রামের আমিনুর, আটঘরা গ্রামের অন্তু দাশ, মাঝিয়াড়া গ্রামের মেহেদি হাসান স্বাক্ষরসহ অনেক কৃষকরা জানান, বিগত বছরের তুলনায় এবার বোরো চাষাবাদে সময় মতো সেচ, সার ও কীটনাশক ব্যবহার করতে পেরেছেন তারা। আর আবহাওয়াও ছিল অনুকূলে। এজন্য ক্ষেতের ফলনও আগের তুলনায় বেশি হবে বলে ধারণা করছেন তারা।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ হাজেরা বেগম জানান, এ বছর আবহাওয়া ভালো থাকার কারণে অনেক এলাকায় চাষাবাদ হয়েছে। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে প্রায় ৫০০ হেক্টরের বেশি জমিতে ইরি-বোরো চাষাবাদ হয়েছে।

Facebook Comments