বগুড়া উপনির্বাচন আজ ভোট হবে ইভিএমে

 Posted on

দলিত কন্ঠ ডেস্ক

একাদশ জাতীয় সংসদের বগুড়া-৬ শূন্য আসনের উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে বগুড়ায় ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। আজ সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) সদর সংসদীয় আসনের ১৪১টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন উপলক্ষে বিপুল সংখ্যক পুলিশ র‌্যাব আনসার সদস্য ছাড়াও বিজিবি মোতায়েন থাকছে। এরমধ্যে পুলিশ ও আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করছে ৩ হাজারের ওপর। থাকছে ১৫ প্লাটুন বিজিবি ছাড়াও র‌্যাবের ১৪টি টিম। তবে সবকিছু ছাপিয়ে আলোচনায় থাকছে কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি কেমন হবে ও ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের ভোট কেমন হবে। বগুড়াতে এবারই প্রথম কোন নির্বাচনে ইভিএম’র মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে। আর ইভিএম নিয়ে ভোটারদের আগ্রহ ও কৌতুহল রয়েছে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া সদর আসন থেকে নির্বাচিত হয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শপথ না নেয়ায় বগুড়া-৬ আসন শূন্য হয়। এই উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে টি জামান নিকেতা, বিএনপির গোলাম মোহাম্মাদ সিরাজ ও জাতীয় পার্টির নুরুল ইসলাম ওমরসহ ৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও নির্বাচনী প্রচারের শেষ পর্যায়ে এক স্বতন্ত্র প্রার্থী তার প্রার্থিতা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন। আসনে মোট ভোটার ৩ লাখ ৮৭ হাজার ৪৫৮। এরমধ্যে মহিলা ভোটার ১ লাখ ৯৫ হাজার ৭৯০ ও পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৯১ হাজার ৬৬৮ জন। ১৪১টি কেন্দ্রের ৯৫৬টি বুথে ভোটগ্রহণ করা হবে। প্রিজাইডিং, পোলিং অফিসারসহ ভোটগ্রহণকারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন ৩ হাজারেরও বেশি কর্মকর্তা। ভোটকেন্দ্রগুলোতে রোববার সকাল থেকে ইভিএম পাঠানো হয়। কোন কেন্দ্রে ইভিএম সেটে সমস্যা হলে তার জন্য প্রতিকেন্দ্র থাকছে অতিরিক্ত সেট। ইভিএম নিয়ে ভোটারদের ব্যাপক আগ্রহ থাকায় এ বিষয়ে সচেতনতা ও ভোটদান পদ্ধতি জানাতে ২২ জুন প্রতিটি কেন্দ্রে মক বা অনুশীলনমূলক ভোট হয়েছে। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মো. মাহবুব আলম শাহ জানিয়েছেন, ভোটগ্রহণের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। এবার ভোটগ্রহণ উপলক্ষে বগুড়ায় বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। নির্বাচন অফিস ও প্রশাসন সূত্র জানায়, ১৪১টি কেন্দ্রের মধ্যে ১১১টি ভোটকেন্দ্রকে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে ১ জন অফিসারসহ ৫ পুলিশ সদস্য এবং ১২ জন করে আনসার সদস্য থাকছে। আর সাধারণ ৩০টি কেন্দ্রে ৪ পুলিশ সদস্যর সঙ্গে আইনশৃঙ্খলার দায়িত্ব পালন করবে ১২ জন আনসার সদস্য। নির্বাচন উপলক্ষে দেড় হাজার পুলিশ সদস্য, ১৩ প্লাটুন বিজিবি ও ১৪টি টিমে শতাধিক র‌্যাব সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া যেকোন পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য আরও ২ প্লাটুন বিজিবি অতিরিক্ত হিসেবে রাখা হয়েছে। থাকছে প্রতি টিমে ১০ জনকে নিয়ে পুলিশের ১৩টি স্ট্রাইকিং ফোর্স। এছাড়া ২ জন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এবং ২৬ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন।

Facebook Comments