দলিত বিরোধী কর্মকাণ্ডের অভিযোগ তুলে অখিলেশের সঙ্গে জোট ছাড়লেন মায়াবতী

 Posted on

দলিত কন্ঠ আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতের উত্তরপ্রদেশে সমাজবাদী পার্টির সঙ্গে মহাজোটবন্ধনে ইতি টানলেন বহুজন সমাজ পার্টির (বিএসপি) নেত্রী মায়াবতী। উত্তরপ্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, আগামী নির্বাচনগুলিতে বিএসপি এককভাবেই লড়াই করবে। ওয়ান ইন্ডিয়া, জি নিউজ

জোট ছাড়ার পর যাদব পরিবারকে আক্রমণ করে মায়াবতী বলেন, সমাজবাদী পার্টির নেতা মুলায়ম সিং যাদব বিজেপির হাতের পুতুল হয়ে কাজ করছেন। এছাড়াও তিনি অখিলেশ যাদবের বিরুদ্ধে অযাদব ও পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে কাজ করার অভিযোগ এনেছেন। মায়াবতী বলেন, এর কারণেই লোকসভা ভোটে পরাজয় হয়েছে। মায়াবতী টুইটারে লিখেছেন, ‘সমাজবাদী পার্টি সরকারে থাকার সময় অসংখ্য দলিত বিরোধী কাজ করেছে। তা সত্তে¡ও আমরা অতীত ভুলে মহাজোটবন্ধনে শামিল হয়েছিলাম। কিন্তু লোকসভা নির্বাচনের ফলপ্রকাশের পর সমাজবাদী পার্টি নেতৃত্বের ব্যবহার আমাদের অন্যভাবে ভাবতে বাধ্য করছে। অখিলেশ আমাকে একটা ফোনও করেন নি। এভাবে আদৌ বিজেপি-কে পরাজিত করা সম্ভব হবে কিনা, তা নিয়ে আমরা সন্দিহান। এই পরিস্থিতিতে দল এবং আন্দোলনের স্বার্থে আসন্ন নির্বাচনগুলিতে বিএসপি একাই লড়াই করবে।’

রোববার লক্ষ্মৌতে বসপার সর্বভারতীয় বৈঠকের পরেই মায়াবতী এই সিদ্ধান্ত নেন। সূত্র জানাচ্ছে, সে বৈঠকে মায়াবতী লোকসভা ভোটে জোটের হারের জন্য সমাজবাদী পার্টিকেই দায়ী করেছেন। বসপা ৩৮টি আসনের মধ্যে জিতেছে ১০টিতে, অন্যদিকে ৩৭টির মধ্যে সপা জিতেছে ৫টিতে।

উত্তরপ্রদেশের রাজ্য রাজনীতিতে দীর্ঘ কয়েক দশক ধরে প্রভাব খাটানো সমাজবাদী পার্টি এবং বিএসপি প্রথম নির্বাচনী জোট গড়ে তোলে ২০১৮ সালের শুরুতে। বিজেপি প্রধান রাজ্যটিতে কিছুদিনের মধ্যেই ১১টি বিধানসভা আসনে উপনির্বাচন হবে। কারণ, সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি-র ৮ জন এবং আপনা দল (এস), সমাজবাদী পার্টি এবং বিএসপি-র একজন করে বিধায়ক সাংসদ হয়েছেন।

 

Facebook Comments